Tag archives for বাবা-ছেলে

বিরক্ত বাবা

Bookmark

Share

বিরক্ত হয়ে বাবা ছেলেকে বললেন, কেবল প্রশ্ন আর প্রশ্ন! এত প্রশ্ন কর কেন? আমার ছেলেবেলায় আমি যদি বাবাকে এত প্রশ্ন করতাম তা হলে যে কী হত তাই ভাবি। ছেলে বলল, তা হলে হয়তো আমার দু’একটা প্রশ্নের আজ জবাব দিতে পারতে বাবা।

অফিস থেকে ফিরে

Bookmark

Share

অফিস থেকে ফিরে হাসান সাহেব তার সাত ছেলেমেয়েকে কাছে ডাকলেন। বললেন, গত এক সপ্তাহে কে সবচেয়ে বেশি বাধ্য হয়ে থেকেছে? মা যা বলেছেন তাই বিনা বাক্য ব্যয়ে পালন করেছে? তার জন্য পুরস্কার আছে।
এক ছেলেঃ তা হলে তো আব্বু পুরস্কার টা তো তুমিই পাচ্ছ।

বিড়ালের বাচ্চা

Bookmark

Share

– বাবা দেখো দেখো বিড়ালের বাচ্চাগুলোর চোখ ফুটেছে!
– কী করে দেখব আমার যে চোখ উঠেছে!

দুষ্টুমি

Bookmark

Share

বাবাঃ স্কুলে আজ দুষ্টুমি কর নি তো আব্বু?
ছেলেঃ না আব্বু, সারাক্ষণ কানে ধরে বেঞ্চের উপর দাঁড়িয়ে ছিলাম।

টেস্টটিউব বেবি

Bookmark

Share

– বাবা, আমি কি তোমাদের টেস্টটিউব বেবি?
– কেন, হঠাৎ এ প্রশ্ন কেন?
– না, সব ক্লাস টেস্টে ফেল করলাম কিনা তাই!

মিলিয়ন বছর

Bookmark

Share

ছেলে উচ্চৈস্বরে চিৎকার করে বিজ্ঞান পড়ছে, ‘পৃথিবী ধ্বংস হবে দুই মিলিয়ন বছর পর’… ‘পৃথিবী ধ্বংস হবে দুই মিলিয়ন বছর পর’
শুনে বাবা আঁতকে উঠলেন যেন,
– কী বলছিস?
– বলছি পৃথিবী ধ্বংশ হবে দুই মিলিয়ন বছর পর।
– ও তাই বল, আমি শুনলাম এক মিলিয়ন বছর পর !

ঈদের সিজন

Bookmark

Share

ঈদের সিজনে ছেলে বাবাকে বলছে বাবা চাঁদ কি পৃথিবী থেকে অনেক দূরে?
ঈদ মার্কেটিং করতে করতে ক্লান্ত বাবা উত্তর দিল, ‘হ্যাঁ , তবে আরেকটু দূরে হলে আরো ভাল হত’।

একজন নিগ্রো

Bookmark

Share

একজন নিগ্রো দাসত্ব করে নিজের তিন ছেলেকে উচ্চ শিক্ষা দেয়। তারা বর্তমানে স্বয়ংসম্পূর্ণ। বৃদ্ধটি এখন মৃত্যুশয্যায়। পাশের ঘরে বসে তিন ছেলে আলোচনা করছে।
প্রথম ছেলেঃ বাবার মৃতদেহ কবরে নিয়ে যাওয়ার জন্য একটা ব্রোঞ্জের শবাধার ফ্যাজেলম্যানের কাছ থেকে পাওয়া যাবে। ও সাধারণত এটা বেশি ভাড়ায় বড় লোকদের দেয়।
দ্বিতীয় ছেলেঃ ওতে অনেক খরচ হবে। তার চেয়ে বরং ও ব্রিয়েনের কাছ থেকে সস্তার শবাধদারটা নিলেই হবে।
তৃতীয় ছেলেঃ অত খরচে না গিয়ে একজন নিগ্রোকে কিছু দিলেই সে মৃতদেহ বয়ে নিয়ে যাবে কবরে।
ছেলেদের কথা শুনে পাশের ঘর থেকে উঠে এলেন বৃদ্ধ নিগ্রো। বললেন, আমার শার্টটা দাও, আমি নিজেই আমার কবরে যাব। তোমাদের কষ্ট করতে হবে না।

পাস করলে সাইকেল

Bookmark

Share

বাবাঃ পাস করলে একটা সাইকেল কিনে দেব বলেছিলাম, তবু তুই পাশ করতে পারলি না? এতদিন কী করছিলি?
ছেলেঃ সাইকেল চড়া শিখছিলাম।

আল্পস পর্বতমালা কোথায়?

Bookmark

Share

বাবা খুব মনোযোগ দিয়ে কী যেন লিখছিলেন। এমন সময় ছেলে হোমওয়ার্কের খাতা নিয়ে এল।
– আব্বু, আল্পস পর্বতমালা কোথায়?
– তোমার মা’কে জিজ্ঞেস কর। উনিই তো সব জিনিসপত্র গুছিয়ে রাখেন।