Tag archives for উকিল

সত্যি বলব

Bookmark

Share

বন্দিঃ মহান বিচারপতি, কী করতে হবে আমি জানি না।
বিচারকঃ কেন, কী হয়েছে?
বন্দিঃ এখানে আমি শপথ নিয়েছি সত্যি বলব। কিন্তু আমি যতবারই সত্যি বলার চেষ্টা করছি ততবারই কোন না কোন উকিল বাধা দিচ্ছেন।

৩০ বছর পর ডিভোর্স

Bookmark

Share

উকিলঃ বিয়ের ৩০ বছর পর ডিভোর্স চাইছেন লাভ কী, আর কতদিনই বা বাঁচবেন?
লোকঃ বাকি জীবনটা একটু শান্তিতে থাকতে চাই যে!

২৫ বছর ধরে

Bookmark

Share

উকিলঃ বিয়ের ২৫ বছর পর ডিভোর্স চাইছেন বিষয়টা ভালোমতো ভেবে দেখেছেন তো?
লোকঃ আর কী ভাবব, ২৫ বছর ধরেই তো ভাবছি।

মোটর গাড়ির দুর্ঘটনা

Bookmark

Share

মোটর গাড়ির দুর্ঘটনার দরুন ক্ষতিপূরণ দাবিতে মামলা চলছিল। আসামির উকিল ফরিয়াদিকে প্রশ্ন করলেন, দুর্ঘটনার পরে আসামি যখন আপনাকে জিজ্ঞেস করেছিল, আপনি কি আহত হয়েছেন? তখন আপনি বলেছিলেন কি না যে আপনার কোন চোট লাগে নি?
বিবাদী বলল, হ্যাঁ, বলেছিলাম। কিন্তু কথাটা বলা হয়েছিল এভাবে – আমার ঘোড়ার গাড়ি মোটরের সঙ্গে ধাক্কা লেগে রাস্তার পাশে উল্টে পড়ল। আমি খাদে পড়লাম। আমার পাশে ঘোড়াটাও চিৎ হয়ে চার পা তুলে রইল। লোকটা গাড়ি থেকে বেরিয়ে এসে আমার দিকে তাকাল। তারপর তার মনে হল ঘোড়াটার একটা পা ভেঙ্গে গেছে। তখন সে গাড়িতে গিয়ে বন্দুকটা নিয়ে ফিরে এল। ঘোড়াটাকে গুলি করল। তারপরই আমার দিকে তাকিয়ে বলল, আপনিও কি আহত হয়েছেন?

মৃতশয্যায় শায়িত

Bookmark

Share

মৃতশয্যায় শায়িত এক লোক উকিলকে দিয়ে উইল লেখাচ্ছিলেন। ‘নিম্ন লিখিত লোকগুলো আমার শব বহন করবে;” বলে বেশ কয়েকজনের নাম লেখলেন।
উকিল দেখলেন যাদের নাম লেখা হয়েছে তাদের কারো সঙ্গেই তার ভালো সম্পর্ক নেই। তাহলে কেন এদেরকে দিয়েই শব বহন করাতে চান তিনি? কৌতূহল দমন না করতে পেরে প্রশ্নটা করেই ফেললেন উকিল।
লোকটি বলল, এরা আমার কাছে টাকা পায়। এরা যখন আমাকে জীবনের বহু সময় বহন করেছে, তখন আমার শব বহন করে তাদের দায়িত্ব শেষ করুক।

রিভলবারের সামনে মেয়েমানুষ

Bookmark

Share

উকিলঃ তা হলে ঐ ভদ্রলোক যখন রিভলবার হাতে আপনার দিকে এগিয়ে আসছিলেন তখন আপনার হাতে কিছুই ছিল না?
মক্কেলঃ ছিল, ঐ ভদ্রলোকের স্ত্রীই ছিল আমার হাতে কিন্তু রিভলবারের সামনে মেয়ে-মানুষ আর কী কাজে আসে বলুন।

ডিভোর্স

Bookmark

Share

ভদ্রলোকঃ আমি আপনার কাছে জানতে এসেছি আমার ডিভোর্স করার গ্রাউন্ড আছে কি না।
উকিলঃ আপনি কি বিবাহিত?
ভদ্রলোকঃ অবশ্যই।
উকিলঃ তা হলে গ্রাউন্ড আছে।

গালাগালি

Bookmark

Share

উকিলঃ এই লোকটা কি আপনাকে জঘন্য গালাগালি করেছে?
বাদীঃ জি স্যার। আমাকে ও যে-সব গালাগালি করেছে তা ভদ্রলোকের সামনে বলা যাবে না।
উকিলঃ ঠিক আছে, আমরা সবাই আদালত কক্ষ থেকে বেরিয়ে যাচ্ছি, আপনি ওই গালাগালি গুলো জজ সাহেবকে শুনিয়ে দিন।

নিগ্রো উকিল

Bookmark

Share

দুই ছেলের মধ্যে কথা হচ্ছে।
– আমার বাবার আয়কর উকিলকে দেখেছিস?
– না।
– দেখতে একদম নিগ্রোর মত।
– কেন?
– বাহ, আমার বাবার সব টাকাই যে কালো টাকা।

রাতে এসো না কিন্তু

Bookmark

Share

ডাকাত জামিনে মুক্তি পেয়ে উকিলের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছেঃ
– স্যার, আপনি আমার অনেক উপকার করলেন। মাঝে মাঝে আপনার কাছে আসব।
– তা আসবে, তবে দয়া করে রাতে এসো না কিন্তু!