Archives for পাগল ও পাগলামী

মানসিক হাসপাতালে এক ইন্সপেক্টর

Bookmark

Share

এক ইন্সপেক্টর একটি মানসিক হাসপাতালে এসেছেন রুটিন চেক-আপ করতে।
চেক-আপ করবার সময় জরুরি একটা ব্যাপারে টেলিফোন করতে গেলেন। বহুক্ষণ চেষ্টা করেও লাইন পেলেন না। ক্রুদ্ধ ইন্সপেক্টর টেলিফোন করলেন এক্সচেঞ্জে।
– জানেন, আমি কে?
– না, তা জানি না। তবে এটা জানি যে , আপনি মানসিক হাসপাতাল থেকে ফোন করেছেন।

ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী

Bookmark

Share

ব্রিটেনের প্রধানমত্রী একবার পাগলা গারদ পরিদর্শনে যান। এক পাগল তাকে দেখে বললেন, আপনি এখানে কবে এসেছেন?
– আজ, এইমাত্র। তা আপনার পরিচয়?
– আমি ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী।
– চিন্তা করবেন না। শীঘ্রই সেরে উঠবেন। আমি চিলাম আমেরিকার প্রধানমন্ত্রী।

পাইলটের অট্টহাসি

Bookmark

Share

২১২ জন যাত্রী নিয়ে জেট বিমানটি ৩৫ হাজার ফুট উপরে।
হঠাৎ বিমানের পাইলট অট্টহাসি হাসতে লাগল।
মাইক্রোফোনে সে হাসি শোনা গেল।
দ্রুত ককপিটে গিয়ে একজন যাত্রী জানতে চাইল, এমনভাবে হাসছেন কেন ক্যাপ্টেন?
– আমি ভাবছি, সবাই কী ভাববে যখন পাগলাগারদের ডাক্তার, নার্স, পাহারাদাররা টের পাবে যে আমি পালিয়ে এসেছি। হা হা হা।

সাঁতার জানি না

Bookmark

Share

একদিন পাগলা গারদের এক ডাক্তার তিন পাগলের উন্নতি দেখার জন্য পরীক্ষা নিচ্ছেন। পরীক্ষায় পাস করতে পারলে মুক্তি আর না করলে আরো দুই বছরের জন্য আটকানো হবে। ডাক্তার তিনজনকে সাথে নিয়ে একটা পানিশূন্য সুইমিং পুলের সামনে গিয়ে ঝাঁপ দিতে বললেন। প্রথম জন সাথে সাথেই ঝাঁপ দিয়ে পা ভেঙ্গে ফেলল। দ্বিতীয় পাগলটিও ডাক্তারের কথা মতো ঝাঁপ দিয়ে হাত ভেঙ্গে ফেলল। কিন্তু তৃতীয় পাগলটি কোনমতেই ঝাঁপ দিতে রাজি হলো না। ডাক্তার আনন্দে চিৎকার করে উঠে বললেন, “আরে, তুমি তো পুরোপুরি সুস্থ। তোমাকে মুক্ত করে দেব আজই। আচ্ছা বলো তো তুমি কেন ঝাঁপ দিলে না ? জবাবে সে বললো, “আমি তো সাঁতার জানি না”।

ঠিক মতই পালাইছি

Bookmark

Share

ক্রিং ক্রিং!!!
বেজে উঠলো পাগলাগারদের টেলিফোনটা।
রিসিপশনিস্ট মেয়েটা ফোন ধরে বললেন, “হেল্লো, কীভাবে সাহায্য করতে পারি?”
ওপাশ থেকে তবাব দিল, “আপা, দেখেন তো রুম নাম্বার ৪৭ এ কেউ আছেনি?”
মেয়েটা জবাব দিল, “জিনা, কেউ নাই, আপনি কাকে চাচ্ছেন??”
লোকটা আবার বলল, “দেখেন তো ভালো মত, কেউ আছে কিনা, সিউর হইয়া বলেন না প্লিজ।”
মেয়েটা রুম নাম্বার ৪৭ এ গেল, ভালমত দেখে এসে বললো, “না রে ভাই কেউ নাই…আপনি কাকে চাচ্ছেন??”
অপরপ্রান্ত থেকে উত্তর আসলো, “যাক, তাইলে ঠিক মতই পালাইছি!!”

পাগলাগারদের পাগল

Bookmark

Share

পাগলাগারদের সব পাগল নাচানাচি করছিল। শুধু একজন বসে ছিল চুপ করে। অন্য পাগলেরা জিগ্যেস করল, ‘কী হে, তুমি বসে আছ কেন?’
সে উত্তর দিল, ‘দূর ব্যাটা, বিয়ে বাড়িতে জামাই কখনো নাচে?’